1. paribahanjagot@gmail.com : pjeditor :
  2. jadusoftbd@gmail.com : webadmin :
মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৪:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সম্পাদক ওসমান আলীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ, অপসারণ দাবি বৈশ্বিক বিমান সংস্থাগুলোর মুনাফা হবে তিন হাজার কোটি ডলার উত্তরা মোটর্স বাজারে এনেছে ইসুজুর দুই মডেলের বাস বাংলাদেশীদের জন্য ভ্রমণ ফি কমাল ভুটান পরিবহন চাদাবাজি : সিএনজিচালিত অটোরিকশার স্ট্যান্ড দখল নিয়ে সংঘর্ষে রণক্ষেত্র হবিগঞ্জ নিহত ৩, আহত ৫০ গতিসীমা নিয়ে বিতর্ক : শহরে বাইকের সর্বোচ্চ গতি ৩০ কিলোমিটার, মহাসড়কে ৫০ কর্মীরা গণহারে অসুস্থ, এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের ৯০ ফ্লাইট বাতিল মগবাজার রেল গেটে ট্রেনের ধাক্কায় গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের গাড়ি চুরমার নতুন দুটি বিদেশি এয়ারলাইন্সের কার্যক্রম শুরু আগামী মাসে : অক্টোবরে চালু হচ্ছে থার্ড টার্মিনাল চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে ৯ মাসে ৪৩৫৫ কোটি ডলারের পণ্য রফতানি

পদ্মা রেল সংযোগ প্রকল্প ‘রি ডিজাইন’ করার সিদ্ধান্ত

রেলপথ রিপোর্টার
  • আপডেট : শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০

পদ্মাসেতুর রেল সংযোগ প্রকল্প ‘রি ডিজাইন’ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ত্রুটি সংশোধনের জন্য রেলের গার্ডার সরিয়ে ফেলতে হবে। সড়কের সঙ্গে রেললাইনের হেডরুম উচ্চতা কমপক্ষে ৫ দশমিক ৭ মিটার করে নতুন ডিজাইন আগামী সপ্তাহে জমা দেবে রেলওয়ে। শুক্রবার দিনভর পদ্মাসেতু প্রকল্প এলাকায় রেল ও সেতু সচিব এবং প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা প্রকৌশলীরা বৈঠক করেন। সেখানে রেলওয়ে তাদের ত্রুটি সমাধানে রি-ডিজাইন করার বিষয়টি তুলে ধরে।
সেতু সচিব বেলায়েত হোসেন জানান, আগামী সপ্তাহে রেলওয়ে রি-ডিজাইন জমা দেওয়ার কথা। রেলসংযোগ প্রকল্পের এই ভুলটি দ্রুত সমাধান হবে বলে মনে করেন তিনি। ‘আমি ও রেল সচিব সেতুর উপর উঠে রোডওয়ে ও রেলওয়ে ডেক বসানোর কাজ পরিদর্শন করেছি । সেতুর ২ কিলোমিটার পর্যন্ত ডেক বসানো শেষ হয়েছে । আগামী ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে বাকি ১০টি স্প্যান বসানো সম্ভব হবে । আগামী বছরের ডিসেম্বরে সেতুর সব কাজ শেষ করে যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে।’
গত ১৪ সেপ্টেম্বর পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের হেডরুম উচ্চতার ত্রুটি নিয়ে সারাবাংলা প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তখনো রেলওয়ে বিষয়টি গোপন রেখেছিল। এরমধ্যে রেলওয়ের কাজে আপত্তি জানিয়ে দেয় বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে দ্রুত সমাধানের তাগিদ আসে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব এর মাধ্যমে খোদ প্রধানমন্ত্রী বিষয়টি অবগত হন। এরপর সমাধান খোঁজা শুরু হয়। তার অংশ হিসেবে সরেজমিন পরিদর্শন করেন রেল সচিব, সেতু সচিব, পদ্মা রেলসংযোগ ও মূলসেতু প্রকল্পের দুই পরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
রেল মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, পদ্মা রেলসংযোগ প্রকল্পের ভুল সমাধান ইঞ্জিনিয়ারিং প্রক্রিয়ায় হচ্ছে। এ জন্য বর্তমান যে গার্ডার আছে তার পরিবর্তন করবে রেলওয়ে। সড়ক থেকে রেল লাইনের উচ্চতার যে স্ট্যান্ডার্ড আছে সেটি অনুসরণ করতেই এটা করা হবে।
মূল পদ্মাসেতুর ভেতরে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার রেললাইন নির্মাণ কাজ করছে সেতু কর্তৃপক্ষ। এর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি। তবে সমস্যা তৈরি হয়েছে সেতুর দুই পাড়ের রেললাইন নিয়ে, যা ঢাকা থেকে মাওয়া পর্যন্ত এবং মাওয়া থেকে পদ্মাসেতু হয়ে ওই পারের জাজিরা থেকে ভাঙা পর্যন্ত বিস্তৃত। এটি পদ্মা রেল লিংক প্রকল্প নামে পরিচিত, যার কাজ করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। এর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে গ্রুপ।
পদ্মাসেতু সূত্র জানায়, সেতুর মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে এই সমস্যা দেখা দিয়েছে। দুই পাশের কিছু অংশে রেললাইন ওপর দিয়ে গেছে। এসব জায়গায় হেডরুম যে উচ্চতায় দেওয়ার কথা, সেটি দেয়নি রেলওয়ে। এ অবস্থায় সেতুতে ওঠানামা করতে পারবে না বড় ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যানগুলো।
হরাইজন্টাল ও ভার্টিক্যাল— দুটো দিকেই রেলওয়ের কাজে আপত্তি দেওয়া হয়েছে। দেশের সড়কপথের হেডরুম স্ট্যান্ডার্ড হলো— হরাইজন্টাল ১৫ মিটার, ভার্টিক্যাল ৫ দশমিক ৭ মিটার, যা এখানে মানা হয়নি। এ অবস্থায় সেতুতে ট্রাক কাভার্ড ভ্যানও দুই তলা বাস যেতে পারবে না।।
দেশে মহাসড়কগুলোতে নিয়ম অনুযায়ী হেডরুম উচ্চতা রাখতে হয় সর্বনিম্ন ৫ দশমিক ৭ মিটার। কিন্তু পদ্মা রেললিংক প্রকল্পে মাত্র ৪ দশমিক ৮ মিটার উচ্চতা দেওয়ায় এ সমস্যা হয়েছে।
সারাবাংলা/এসএ/একে

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© 2020, All rights reserved By www.paribahanjagot.com
Developed By: JADU SOFT