1. paribahanjagot@gmail.com : pjeditor :
  2. jadusoftbd@gmail.com : webadmin :
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
পরিবহন চাদাবাজি : সিএনজিচালিত অটোরিকশার স্ট্যান্ড দখল নিয়ে সংঘর্ষে রণক্ষেত্র হবিগঞ্জ নিহত ৩, আহত ৫০ গতিসীমা নিয়ে বিতর্ক : শহরে বাইকের সর্বোচ্চ গতি ৩০ কিলোমিটার, মহাসড়কে ৫০ কর্মীরা গণহারে অসুস্থ, এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের ৯০ ফ্লাইট বাতিল মগবাজার রেল গেটে ট্রেনের ধাক্কায় গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের গাড়ি চুরমার নতুন দুটি বিদেশি এয়ারলাইন্সের কার্যক্রম শুরু আগামী মাসে : অক্টোবরে চালু হচ্ছে থার্ড টার্মিনাল চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে ৯ মাসে ৪৩৫৫ কোটি ডলারের পণ্য রফতানি ইউএস বাংলার বহরে যুক্ত হলো দ্বিতীয় এয়ারবাস ৩৩০ মেট্রো রেলের টিকিটে ১৫% ভ্যাট বসছে জুলাই থেকে তালাবদ্ধ গ্যারেজে বিলাসবহুল ১৪ বাস পুড়ে ছাই, পুলিশ হেফাজতে প্রহরী হোন্ডা শাইন ১০০ সিসি মোটরসাইকেল বাজারে

‘সন্দ্বীপকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলা হবে’

সন্দ্বীপ প্রতিনিধি
  • আপডেট : বুধবার, ৭ অক্টোবর, ২০২০
পর্যটন শিল্প উন্নয়নে মাস্টার প্ল্যানের আওতায় পড়ছে সন্দ্বীপ, জানান সংসদ সদস্য মাহফুজুর রহমান মিতা। তিনি বলেন, সরকারিভাবে সন্দ্বীপকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এ জন্যে একটি পর্যবেক্ষণ দল সন্দ্বীপ আসবে। আমার স্বপ্ন বিছিন্ন দ্বীপ সন্দ্বীপের সাথে মূল ভূখন্ডের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করা। এবং সন্দ্বীপকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলা। বঙ্গোপসাগরের কোল ঘেঁষে মেঘনা মোহনায় প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্যে জেগে ওঠা স›দ্বীপ বাংলাদেশের পর্যটন শিল্প বিকাশের সম্ভাবনার অন্যতম স্থান। চারিদিকে সাগরবেষ্টিত এ দ্বীপটি শ্যামল ছায়া ঘেরা।

পূর্ব সন্দ্বীপের উপকূল ঘেঁষে বিশাল কেওরা বন যেন সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভের মত সৌন্দর্যের পসরা সাজিয়েছে। এ বনের মাঝে মাঝে সন্দ্বীপ চ্যানেলের সাথে সংযুক্ত আঁকা বাঁকা খাল সৌন্দর্যের নতুন মাত্রা যোগ করেছে। সাগরের বুক চিরে সন্দ্বীপের পশ্চিম পাশে রহমতপুর-হরিশপুর স্পটে সাবেক স্টিমার ঘাট এলাকায় জেগে উঠেছে বিশাল চর।পড়ন্ত বিকেলে সূর্য স্নানের দৃশ্য দেখার জন্য এটি ইতোমধ্যে দর্শনার্থীদের আকর্ষণীয় মনোরম স্থানে পরিণত হয়েছে। সন্দ্বীপে দক্ষিনের ছোয়াখালী এলাকার উন্মুক্ত দখিনা হাওয়া এবং উপকূল ঘেঁষে সাগর থেকে উঠে আসা চিক চিক বালি যেন আমাদেরকে কক্সবাজার সৈকতের সম্ভাবনা দেখায়। তার পাশ থেকে পশ্চিম দিকে দীর্ঘ ৮/১০ কিলোমিটার জুড়ে নতুন বেড়িবাঁধের সাথে যুক্ত হচ্ছে সিসি ব্লক। এ বেড়িবাঁধে দাঁড়িয়ে দক্ষিণে তাকালেই চলমান দেশী-বিদেশী নৌযানের বিশাল বহর দেখলে পতেঙ্গা সমুন্দ্র সৈকতের কথা মনে পড়বে। ৪২ কিলোমিটার টেকশই বেড়িবাঁধ নির্মাণ শেষ হলে বেড়িবাঁধের উপর পাকা রাস্তা তৈরী করে এবং এ সড়কের দু’পাশে সড়কবাতির মাধ্যমে দ্বীপের চতুর্দিক আলোকিত করলে সৌন্দযর্ পিয়াসীরা সাগর কন্যা সন্দ্বীপের সৌন্দর্যকে পর্যটনসমৃদ্ধ বিদেশী কোন রাষ্ট্রের সাথে তুলনা করবেন।
এদিকে গুপ্তছরা ঘাটে যাতয়াতে সুবিধার্ত্বে নির্মিত ৬০০ মিটার দৈর্ঘ্যরে জেটিটিতে দুই পাশে ল্যাম্প পোস্টের কারণে সৌন্দর্য্য বর্ধন হওয়াতে ভীর জমাচ্ছে দর্শণার্থীরা। এতসব সম্ভাবনা থাকা সত্বেও একসময় এ শিল্প বিকাশের পথে প্রধান অন্তরায় ছিল বিদ্যুৎ। সাগরের তলদেশ দিয়ে জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুৎ আসার পর এ সমস্যা এখন দূরীভূত হয়েছে। দেশী-বিদেশী পর্যটকদের আকৃষ্ট করার মত এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে চায় সরকার। পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে উঠলে সবুজে ঘেরা সাগর বেষ্টিত এ দ্বীপটি ফিরে পাবে তার আগের ঐতিহ্য। যখন এ দ্বীপে ভ্রমণ পিপাসু পর্যটকরা দূর-দূরান্ত থেকে ঘুরতে আসত।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© 2020, All rights reserved By www.paribahanjagot.com
Developed By: JADU SOFT