1. paribahanjagot@gmail.com : pjeditor :
  2. jadusoftbd@gmail.com : webadmin :
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০২:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
দক্ষিণ কোরিয়া থেকে মিটারগেজ লাল-সবুজ ১৪৭টি কোচ দেশে এসে গেছে গত বছর চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে গাড়ি আমদানি কমেছে ২২ শতাংশ মোংলা বন্দর বিষয়ক স্থায়ী কমিটি এবং বন্দর ব্যবহারকারী গাড়ি আমদানিকারকদের যৌথ সভা মোটর সাইকেল সংযোজন ও আমদানিকারকদের সভা অনুষ্ঠিত অটোমোবাইল সংস্থাগুলোকে একত্র করতে কাজ করবে সাফ ট্যুরিজম ফেয়ার : টিকিটে ১৫ শতাংশ ছাড় দেবে বিমান বাংলাদেশ মেট্রোরেল উত্তরা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত সম্প্রসারণের সমীক্ষা চলছে চলন্ত বিমানে ক্রু সদস্যকে ‘মদ্যপ’ যাত্রীর কামড়, জরুরি অবতরণ, যাত্রী গ্রেপ্তার ভাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জন নিহত কাল থেকে উত্তরা-মতিঝিলে মেট্রোরেল চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত : সাপ্তাহিক বন্ধ শুক্রবার

বাংলাদেশী জাহাজ আমদানিতে আগ্রহী ইরান-ভারতের ব্যবসায়ীরা

বদরুল আলম
  • আপডেট : বুধবার, ২৪ আগস্ট, ২০২২

নব্বইয়ের দশকে গুটিকয়েক প্রতিষ্ঠানের হাত ধরে দেশে জাহাজ ভাঙা শিল্পের যাত্রা। তবে জাহাজ নির্মাণ শিল্পে বাংলাদেশের ইতিহাস অনেক পুরোনো। সরকারি তথ্য-উপাত্ত বলছে, প্রাচীনকাল থেকে জাহাজ নির্মাণে বাংলাদেশের ইতিহাস বেশ সমৃদ্ধ। ১৫০০ থেকে ১৭০০ শতাব্দীতে বাংলাদেশ এশিয়া মহাদেশে সমুদ্রগামী জাহাজ নির্মাণের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়। উনিশ শতকের প্রথম বাণিজ্যিক জাহাজ নির্মাণের সূচনা করে বাংলাদেশ। ২০০৮ সালে শুরু করে আধুনিক জাহাজ রফতানি।
জাহাজ নির্মাণ ও রফতানিতে বাংলাদেশের সক্ষমতা এখন বিশ্বব্যাপী সমাদৃত। বিগত কয়েক বছরে দেশের শিপইয়ার্ডগুলো ইউরোপ, আফ্রিকা ও এশিয়ার কয়েকটি দেশে ৪০টি জাহাজ রফতানি করে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করেছে। এ খাতে বাংলাদেশের সম্ভাবনা কাজে লাগাতে আগ্রহী হয়ে উঠছে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের আমদানিকারকরা, যার সাম্প্রতিক নিদর্শন দেখা গিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) চিঠিতে। সংস্থটির সূত্র বলছে, ইরান ও ভারতের আমদানিকারকরা বাংলাদেশ থেকে জাহাজ আমদানি করতে চাইছেন।
জানা গিয়েছে, বিশ্বের ২১টি দেশে আছে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক উইং। যেখানে নিয়মিতভাবে বাংলাদেশে তৈরি বিভিন্ন পণ্য নিয়ে বাণিজ্যের আগ্রহ প্রকাশ করেন সংশ্লিষ্ট দেশের ব্যবসায়ীরা। চলতি বছরের সর্বশেষ প্রান্তিকে বাণিজ্যিক উইংগুলোতে ব্যবসায়ীদের আগ্রহের বিষয়গুলো সম্প্রতি সংকলন করেছে ইপিবি। সংকলিত তালিকাটি পর্যালোচনায় দেখা যাচ্ছে, বাংলাদেশ থেকে জাহাজ আমদানিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ইরান ও ভারতের ব্যবসায়ীরা।
সূত্র অনুযায়ী, বাংলাদেশে নির্মিত জাহাজ আমদানিতে আগ্রহী ইরানের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের নাম রেডিসন গ্রুপ। তেহরানে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক উইংয়ে এ আগ্রহ প্রকাশ করেছে গ্রুপটি। এছাড়া ভারতের নয়াদিল্লিতে অবস্থিত বাণিজ্যিক উইংয়ে বাংলাদেশে নির্মিত জাহাজ আমদানিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে অ্যাডমনিটাম নামের একটি প্রতিষ্ঠান। ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে ফেডরিক লেইরম্যানের বরাতে দিল্লিতে বাণিজ্যিক উইংয়ে প্রকাশ করা এ আগ্রহের বিষয়ে উল্লেখ রয়েছে ইপিবি সংকলিত তালিকায়।
জানতে চাইলে ইপিবির ভাইস চেয়ারম্যান এএইচএম আহসান বলেন, আমরা নিয়মিতভাবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক উইংগুলোর কার্যক্রম আমরা পর্যবেক্ষণ করি। উইংগুলো থেকে বাংলাদেশের রফতানিকে ত্বরান্বিত করতে সাহায্য করবে এমন তথ্য সংগ্রহ করি। এ ধারাবাহিকতায় এক প্রান্তিকের আগ্রহ সংকলন করা হয়েছে, যেখানে বাংলাদেশের জাহাজ আমদানিতে ইরান ও ভারতের বেসরকারি ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে আগ্রহ প্রকাশ পেয়েছে। এছাড়া আগ্রহের তালিকায় আরো বেশকিছু পণ্য রয়েছে।
এএইচএম আহসান আরো বলেন, বর্তমানে মোট ১৯টি দেশে আমাদের ২১টি বাণিজ্যিক উইং রয়েছে। এসব উইং থেকে আগ্রহের তথ্য সংগ্রহের পর তা বাংলাদেশের সংশ্লিষ্ট রফতানিকারকদের কাছে পৌঁছে দিই। এরপর ব্যবসায়ীরা দ্বিপক্ষীয়ভাবে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করে ব্যবসায়িক কার্যক্রম নিয়ে অগ্রসর হন। পরবর্তী সময়ে ব্যবসায়িক কার্যক্রম এগিয়ে নিতে যদি কোনো সহযোগিতা আমাদের কাছে চাওয়া হয়, তাও নিশ্চিত করার চেষ্টা করা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© 2020, All rights reserved By www.paribahanjagot.com
Developed By: JADU SOFT