1. paribahanjagot@gmail.com : pjeditor :
  2. jadusoftbd@gmail.com : webadmin :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৩৭ অপরাহ্ন

২০৫০ সাল নাগাদ আরব আমিরাতের অর্ধেক রাস্তা দখলে নেবে বৈদ্যুতিক গাড়ি

ট্রান্সপোর্ট টেকনোলজি রিপোর্টার
  • আপডেট : শনিবার, ১৫ জুলাই, ২০২৩

জীবাশ্ম জ্বালানিচালিত গাড়ি থেকে ক্রমেই বেরিয়ে আসছে বিশ্ব। জলবায়ু সংরক্ষণের স্বার্থে ঝুঁকেছে বিদ্যুচ্চালিত গাড়ির (ইভি) দিকে। মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকারও ঝুঁকছে ইভির দিকে। দেশটি ২০৫০ সালের মধ্যে রাজপথের অর্ধেক যানবাহন হিসেবে ইভি দেখতে চায়। দেশটির জ্বালানি ও অবকাঠামোমন্ত্রী সুহাইল বিন মুহম্মদ আল মাজরুই সম্প্রতি জাতীয় ইভি নীতি সম্পর্কে সরকারের অবস্থান ব্যক্ত করেন, যা এরই মধ্যে দেশটির মন্ত্রিসভা অনুমোদন করেছে। খবর অ্যারাবিয়ান বিজনেস।
মন্ত্রী জানিয়েছেন, ২০৫০ সালের মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাস্তায় ৫০ শতাংশ যানবাহন হবে বিদ্যুচ্চালিত। ক্রমবর্ধমান বিদ্যুচ্চালিত গাড়ি শিল্পকে এগিয়ে নিতে দেশজুড়ে ‘চার্জিং স্টেশন’ নেটওয়ার্ক স্থাপন করা হবে। নীতিটি নিয়ন্ত্রক কাঠামো হিসেবে কাজ করবে। যার আওতায় সারা দেশে ইভি চার্জিং স্টেশনগুলোর অবকাঠামোগত মান নিশ্চিত ও স্টেকহোল্ডারদের মধ্যে সমন্বয় করা হবে।
জ্বালানি ও অবকাঠামো মন্ত্রণালয়ের (এমওইআই) নীতিমালাটি ন্যাশনাল এনার্জি অ্যান্ড ওয়াটার ডিমান্ড ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামের উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে সহায়ক। কেননা প্রোগ্রামটি পরিবহনসহ জ্বালানি ঘনিষ্ঠ খাতগুলোয় জ্বালানি খরচ কমাতে চালু করা হয়েছিল।
মন্ত্রী বলেন, ‘নীতিটি স্থানীয় বাজার নিয়ন্ত্রণ, ইভি ব্যবহারে উৎসাহিত করা ও ইভির বিক্রি বাড়াবে— এমন সুষম অর্থনৈতিক, পরিবেশগত ও সামাজিক প্রণোদনা দেয়া হবে। তার মাধ্যমে পরিবেশের অনুকূল জ্বালানি উৎপাদনে এগিয়ে যাওয়া হবে সামনে। এটি সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ২০৫০ সালের মধ্যে পরিবহন খাতে ৪০ শতাংশ জ্বালানি খরচ কমাতে এবং এক কোটি টন কার্বন নিঃসরণ কমানোর লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহায়তা করবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© 2020, All rights reserved By www.paribahanjagot.com
Developed By: JADU SOFT