1. paribahanjagot@gmail.com : pjeditor :
  2. jadusoftbd@gmail.com : webadmin :
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন

গত বছর চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে গাড়ি আমদানি কমেছে ২২ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে ২০২৩ সালে আগের বছরের তুলনায় গাড়ি আমদানি কমে গেছে প্রায় ২২ শতাংশ। আর ৫ বছরের ব্যবধানে দেশের বৃহৎ এই সমুদ্র বন্দর দিয়ে গাড়ি আমদানি কমেছে সর্বোচ্চ ৬০ শতাংশ। চট্টগ্রাম বন্দরের তথ্যমতে, চট্টগ্রাম বন্দরে ৩ হাজার গাড়ি রাখার শেড রয়েছে। এছাড়া মাল্টিপল শেডেও ৩০০-৪০০ গাড়ি রাখা যায়। সব মিলিয়ে গাড়ি আমদানিকারকদের জন্য সব সুবিধা রাখা আছে। করোনা মহামারির পর গাড়ি আমদানি স্বাভাবিক হয়ে এলেও পরবর্তীতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে ডলার সংকটে পড়ে আমদানিকারকরা চাহিদা অনুযায়ী গাড়ি আমদানি করতে পারেনি।
চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের তথ্য অনুযায়ী, চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে ২০২৩ সালে সব ধরনের কার আমদানি হয়েছে ২৪ হাজার ১৫০টি। ২০২২ সালে গাড়ি আমদানির পরিমাণ ছিল ৩০ হাজার ৮৮০টি। অর্থাৎ ২০২৩ সালে ২০২২ সালের তুলনায় গাড়ি আমদানি কম হয়েছে ৬ হাজার ৭৩০টি বা ২১.৭৯ শতাংশ। ৫ বছর আগে ২০১৯ সালে সব ধরনের কার আমদানি হয়েছিল ৬১ হাজার ৪৬৭টি। ২০১৯ সালের তুলনায় ২০২৩ সালে কার আমদানি কমে ৬০.৭০ শতাংশ। চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের তথ্যমতে, ২০২০ সালে ২৮ হাজার ৬৯৭টি গাড়ি আমদানি হয়। করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হয়ে এলে ২০২১ সালে ২০২০ সালের তুলনায় ৪৭.৯৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে গাড়ি আমদানি হয় ৫৫ হাজার ১৫১ টি। পরবর্তীতে ২০২২ সালে আবার গাড়ির আমদানি কমে যায়। ওই বছর আমদানি হয় ৩০ হাজার ৮৮০টি গাড়ি। ২০২৩ সালে গাড়ি আমদানি আরও কমে যায়।
গাড়ি আমদানিকারকরা জানিয়েছেন, ব্যাংকে শতভাগ এলসি মার্জিনে গাড়ি আমদানি সম্ভব হচ্ছে না। ব্যাংক এলসি দিতে পারছে না। এই সংকটের কারণে ছোট পরিসরে তারা এ ব্যবসা থেকে ছিটকে পড়ছেন। টিবিএস।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© 2020, All rights reserved By www.paribahanjagot.com
Developed By: JADU SOFT